• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ৪ঠা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২
সর্বশেষ আপডেট : ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২

সিন্দুকছড়ি বাজারে জুমের পণ্যের পসরা সাজিয়ে বসেছেন পাহাড়ী নারীরা

অনলাইন ডেস্ক
IMG 20220901 220653 | Dainik Naniarchar


গুইমারা প্রতিনিধিঃ-

খাগড়াছড়ির গুইমারা উপজেলার সিন্দুকছড়ি বাজার। এই বাজারে জুমে চাষ করা ফলমূল আর বন জঙ্গল থেকে আহরণ করা টাটকা সবজি বিক্রি হয়। পাশেই পাহাড়ের জুম খেতে জন্মানো হরেক রকমের পণ্য নিয়ে আসেন ‍বিক্রির জন্য। এসব পণ্য কেনার জন্য সাপ্তাহে দুই দিন রবিবার ও বৃহস্পতিবার বিভিন্ন এলাকা থেকে ক্রেতারা সিন্দুকছড়ি এসে ভিড় জমান।

এই বাজারের বিক্রেতাদের বেশির ভাগই নারী। বেশির ভাগ নারী কাঁচা তরকারি বিক্রি করেন। দরিদ্র পরিবারের পাহাড়ি নারীরা দুর্গম উঁচু-নিচু পাহাড় পাড়ি দিয়ে বন জঙ্গল থেকে বিভিন্ন সবজি আহরণ করে এ বাজারে নিয়ে আসেন। অনেকে বিভিন্ন এলাকা থেকে বিভিন্ন সবজি, ফলমূল কিনে এখানে এনে বিক্রি করছেন। এসব ভেজালমুক্ত পণ্য কিনতে ক্রেতারা এ বাজারে ভিড় জমান। এসব বিক্রির আয় দিয়েই তাঁদের সংসার চলে।

এখানে বিক্রি হওয়ায় সবজির মধ্যে রয়েছে বাঁশকুড়ল, তারাগাছ, কচুশাক, কচুরলতি, কাঁচা-পাকা পেঁপে, থানকুনি পাতা থেকে শুরু করে কলার মোচা ইত্যাদি। এগুলোর অধিকাংশই বন থেকে সংগ্রহ করা।

সিন্দুকড়ি বাজারে সবজি কিনতে আসা কংজুরি মারমা বলেন, এখানে নারীরা সবজি বিক্রি করেন। আমরা সহজে টাটকা সবজি কিনতে পারি। এখান থেকে প্রতিদিন প্রয়োজনমতো ভেজালমুক্ত শাক-সবজি কিনে নিয়ে যাই। সবজি সংগ্রহের জন্য দুর্গম পাহাড়ের পিচ্ছিল পথ পাড়ি দেওয়া খুবই কষ্টের হলেও সংসার চালাতে নারীদের এ কাজটি করতে হয় বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

সবজি বিক্রেতা আনুবা মারমা বলেন, সারা দিন বিভিন্ন ধরনের শাক-সবজি কুড়িয়ে এনে এ বাজারে বিক্রি করি। সবজি বিক্রি করে দৈনিক ২০০ থেকে ৩০০ টাকা আয় হয়। এ টাকা দিয়েই চলে পরিবার।

আরও পড়ুন

  • খাগড়াছড়ি এর আরও খবর
%d bloggers like this: